শিরোনাম
লায়ন্স ক্লাব অব লক্ষ্মীপুর সিটির কমিটি গঠন কুশাখালীতে আমার গ্রাম ফাউন্ডেশনের কমিটি গঠন লক্ষ্মীপুরে অনির্বান ফাউন্ডেশন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের আত্মপ্রকাশ দক্ষিণ হামছাদী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন কামাল ভূঁইয়া লক্ষ্মীপুরে সনাকের দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলন বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন লক্ষ্মীপুরে অনুষ্ঠিত হয়েছে নিক্বণের নৃত্য প্রতিযোগিতা লক্ষ্মীপুরে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে যুবকের উপর হামলা লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়ীর উপর হামলার অভিযোগ বঙ্গবন্ধু টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন লক্ষ্মীপুর ক্লাব পুকুরদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ৫টি দোকানঘর ভাংচুর, আহত-৩

রিপোটারের নাম / ১৪৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২

স্টাফ রিপোর্টার: লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার শাকচর ইউনিয়নে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ৫টি দোকানঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ভোর রাতে ফারুক হোসেন দুলাল সঙ্গবদ্ধভাবে এসে এ ভাংচুর চালায়। এতে দোকানের মালিক সরকারী এআই টেকনেশিয়ান মোঃ মোঃ আনোয়ার হোসেনের ১৭লাখ টাকার মতো ক্ষতি হয় বলে জানা যায়। ভাংচুরে বাধা প্রদান করলে দুলাল ও তার লোকজনের হামলায় আহত হয় আনোয়ারের জেঠাতো ভাই মোরশেদ আলম, ভাতিজা স্বাধীন হোসেন ও ফয়সাল।
এ ঘটনায় লক্ষ্মীপুর সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মামলার আলোকে জানা যায় , শাকচর ইউনিয়নের হাজী নজির আহাম্মদ মেম্বার বাড়ির মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে মোঃ আনোয়ার হোসেন কাদিরার গোজা বাজারের পূর্ব পাশে ৪২জমি ক্রয়সূত্রে মালিক। একই জমির মালিকানা দাবি করেন ঐ এলাকার মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে ফারুক হোসেন দুলাল। জমির মালিকানা দাবি করে আদালতে মিস মামলাও দায়ের করেন দুলাল। কিন্তু তহসিলদার সার্বিক কাগজপত্র ও দাখিলিক প্রামানাদি পর্যালোচনা করে আদালতে আনোয়ার হোসেনের পক্ষে রিপোর্ট প্রদান করায় কৌশলে ঐ মামলা প্রত্যাহার করে নেয় দুলাল। সম্প্রতি ঐ জমিতে ৫টি দোকানঘর নির্মান করে মোঃ আনোয়ার হোসেন। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে দুলাল। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ভোর ৫টার দিকে দুলাল লোকজন নিয়ে এসে ঐ দোকানঘর ভাঙচুর করে। গাড়িতে করে দোকানের মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। বাধা দিলে তাদের হামলায় মোরশেদ আলম, স্বাধীন ও ফয়সাল আহত হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ আসলে তারা পালিয়ে যায়। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানেও ভুক্তভোগিদের উপর হামলা চালায় তারা। এ ঘটনায় লক্ষ্মীপুর সদর থানায় ১৫জনের নাম উল্লেখ করে ও আরো অজ্ঞাত ৫০/৬০জন উল্লেখ করে মামলা দায়ের করা হয়।
মামলায় ফারুক হোসেন দুলাল সহ কামাল উদ্দিন, এমরান ও মন্নানকে আটক দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার দাবি করে ভুক্তভোগি আনোয়ার হোসেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ