শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন

চীনে ইয়ুথ ক্যাম্পে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ

রিপোটারের নাম / ১৫৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২

জাহিদ হাসান তুহিন : চীনের চিয়াংশি প্রদেশে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ‘সাংস্কৃতিক দূত এবং শক্তি থেকে তারুণ্য’ প্রতিপাদ্য নিয়ে নর্থ ইস্ট এশিয়ান ইয়ুথ ক্যাম্প অন সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট – ২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ৪০ জন শিক্ষার্থী এই যুব শিবিরে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পান।

এই ইয়ুথ ক্যাম্পটি চিয়াংশি প্রদেশের রাজধানী নানছাং শহরে ২৪ থেকে ২৬ সেপ্টেম্বর তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় এবং সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করা হয়।

চিয়াংশি প্রদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা এ মেগা ইভেন্টে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়েছে। এতে যুব শিবিরে অসাধারণ পারফরমেন্স এবং অবদান রাখার জন্য চিয়াংশি ইউনির্ভাসিটি অব ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইকোনমিকস বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যয়নরত পিএইচডি গবেষক মোহাম্মদ ছাইয়েদুল ইসলামকে “এক্সিলেন্ট ক্যাম্পার অ্যাওয়ার্ড” দেওয়া হয়। এক্সিলেন্ট ক্যাম্পার অ্যাওয়ার্ড এর জন্য তাকে সার্টিফিকেট এবং ৩০০০ আরএমবি (চাইনিজ মুদ্রা) বোনাস মানি প্রদান করা হয়।

ক্যাম্পটি চায়না সং ছিং লিং ফাউন্ডেশন এবং এসকে গ্রুপের যৌথ স্পন্সরে, ফরেন অ্যাফেয়ার্স অফিস অব চিয়াংশি প্রভিন্সিয়াল পিপলস গভর্নমেন্ট এবং চিয়াংশি প্রভিন্সিয়াল পিপলস অ্যাসোসিয়েশন ফর ফ্রেন্ডশিপ উইথ ফরেন কান্ট্রিস যৌথভাবে আয়োজন করে।

সমাপনী অনুষ্ঠানে অনলাইনে বক্তব্য রাখেন, চায়না সং ছিং লিং ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান লি বিন এবং এসকে গ্রুপ এর চেয়ারম্যান কুই তাইইউয়ান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, চিয়াংশি প্রভিন্সিয়াল ফরেন অ্যাফেয়ার্স অফিস এর পরিচালক ঝাও হুই, চায়না সং ছিং লিং ফাউন্ডেশন এর আন্তর্জাতিক বিনিময় ও সহযোগিতা বিভাগের ডেপুটি ডিরেক্টর ফ্যাং শিনওয়েন, এসকে গ্রুপ এর ভাইস প্রেসিডেন্ট থিয়ান ফুশি সহ অন্যান্য অতিথি বৃন্দ।

আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি হিসেবে ইয়ুথ ক্যাম্পে বক্তব্য রাখেন এক্সিলেন্ট ক্যাম্পার অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত মোহাম্মদ ছাইয়েদুল ইসলাম। তিনি বলেন, নর্থ ইস্ট এশিয়ান ইয়ুথ ক্যাম্প অন সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামটি আমাদের একে অপরকে বোঝার, বন্ধুত্ব বাড়াতে, জনগণের মধ্যে অভিন্ন উন্নয়নের প্রচারের জন্য এবং সাংস্কৃতিক বিনিময় প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছে। নানছাং-এ তিন দিনের সফরে আমরা চিয়াংশির সংস্কৃতির অনন্য আকর্ষণ এবং চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বে চীনের উন্নয়নের বাস্তব অভিজ্ঞতা এবং কৌশল অনুধাবন করতে পেরেছি। চীন এবং বিদেশী দেশগুলির মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময়ে তরুণদের বেশি ভূমিকা পালন করা উচিত। আমি চীনা ও বিদেশী সভ্যতার মধ্যে বিনিময় এবং পারস্পরিক শিক্ষাকে উন্নীত করার মাধ্যমে একটি উন্নত বিশ্ব গঠনের জন্য প্রচেষ্টা করব।

তিন দিনের এই ইয়ুথ ক্যাম্প চলাকালীন সময় শিক্ষার্থীরা নানছাং লিনেন টি রিসার্চ পার্ক, ভিআর ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক, নানছাং পোরসেলিন প্লেট আর্ট মিউজিয়াম, নানছাং কম্প্রিহেনসিভ বন্ডেড জোন, নানচাং জাপান-চায়না তাকামাতসু ফ্রেন্ডশিপ হল এবং অন্যান্য জায়গা পরিদর্শন করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ